বাংলাদেশ , মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০

নাগরপুরে স্কুলছাত্রীকে ছুরিকাঘাতের মামলা গ্রহণ করেছে থানা পুলিশ

লেখক : সম্পাদক | প্রকাশ: ২০২০-১০-১০ ১১:৪৩:৩০

মোহাম্মদ মহসিন খান,নাগরপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ বিভিন্ন বেসরকারি টিভি চ্যানেল, জাতীয় দৈনিক, অনলাইন নিউজ পোর্টাল সহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে টাংগাইলে নাগরপুরের “ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে স্কুলছাত্রীকে ছুরিকাঘাত, থানায় মামলা না নেয়ায় আদালতে বাবা ”

এমন সংবাদ পরিবেশনে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ ঘটনাটি ঘটেছে ১৪ সেপ্টেম্বর উপজেলার ধুবড়িয়া ইউনিয়নের কাচপাই গ্রামে। পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত ১৪ সেপ্টেম্বর রাত ৭ ঘটিকায় মামলার বিবাদী একই গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে মাদ্রাসার শিক্ষার্থী মতিউর রহমান মেয়ের ঘরে ঢুকে কুপ্রস্তাব দেয় এতে মেয়ে সাড়া না দিলে তার কাছে থাকা ছুরি দিয়ে মেয়ের ঘাড়ে আঘাত করে।

এসময় তার চিৎকারে বাড়ির লোকজন এগিয়ে এলে মতিউর পালিয়ে যায়। পরে মেয়েকে পরিবারের লোকজন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়। সেখানে চিকিৎসক তার আঘাতের স্থানে ২৫ টি সেলাই করে।

চিকিৎসার পর হাসপাতাল থেকে বাড়ী চলে আসে। ‘নাগরপুর থানায় মামলা নেয়নি ‘ এ বিষয়ে জানতে চাইলে আহত স্কুলছাত্রীর বাবা বলেন, ঘটনার পরের দিন ১৫ সেপ্টেম্বর বিবাদীর বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ নাগরপুর থানায় দাখিল করি। পরে থানা পুলিশ স্বাক্ষর রাখিয়া প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা না করায় ন্যায় বিচারের আশায় আদালতের দ্বারস্থ হই।

মামলা না নেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে নাগরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আলম চাঁদ জানান, মামলার বাদী মোঃ বেল্লাল হোসেন আহত মেয়ের চিকিৎসাকার্যে ব্যস্ত থাকায় তাৎক্ষণিক লিখিত অভিযোগ থানায় দাখিল করতে না পেরে ঘটনা পরবর্তীতে নাগরপুর থানায় এসে মৌলিকভাবে অবহিত করেন ও স্থানীয় লোকজন বাদী ও বিবাদী পক্ষ সমাধানের চেষ্টা করেন।

স্থানীয়ভাবে সমাধান না হওয়ায় গত ৬ অক্টোবর তারিখে লিখিতভাবে থানায় অভিযোগ দাখিল করলে তা থানা পুলিশ মামলা হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করে। লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর আসামীকে গ্রেফতারের জোর চেষ্টা চলছে।

Print Friendly, PDF & Email