বাংলাদেশ , শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯

নারায়ণগঞ্জে অগ্নিকাণ্ডে ২০ ঘর পুড়ে ছাই।

লেখক : সম্পাদক | প্রকাশ: ২০১৯-১১-২২ ১৭:৪৬:০৮

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় একটি বাড়িতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। অগ্নিকাণ্ডের সময় তালাবদ্ধ রুমে থাকায় সম্পা আক্তার (২২) নামের এক গার্মেন্টকর্মী মারা যান। এছাড়া ওই বাড়ির টিনের তৈরি ২০টি রুমও পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ফতুল্লার মুসলিমনগর নয়াবাজার এলাকার ইলিয়াস সরদারের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত সম্পা আক্তার জামালপুরের মাদারগঞ্জ থানার ফৈটামারী এলাকার সোহরাব মিয়ার মেয়ে। আর সুমনের স্ত্রী।
সম্পা আক্তারকে রুমে তালাবদ্ধ করে স্বামী নামাজ পড়ে, এসে দেখে পুরো বাড়ি পুড়ে ছাই এবং স্ত্রী সম্পাও পুড়ে ছাই। স্ত্রীকে বাঁচাতে গিয়ে তিনিও অসুস্থ হন।

এদিকে অগ্নিকাণ্ডের সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) নাহিদা বারিক ও ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন। পরে ইউএনও ঘটনার খোঁজখবর নেন এবং অগ্নিকাণ্ডে নিহতের স্বামী ও পরিবারকে সান্তনা দেন। এ সময় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ হতে নিহতের পরিবারকে ২০ হাজার টাকা অনুদান দেয়া হয়।

প্রত্যক্ষর্শী ও ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানায়, ফতুল্লার মুসলিমনগর নয়াবাজার এলাকার ইলিয়াস মিয়ার বাড়িতে টিনের তৈরি দ্বিতল বাড়ি করা হয়। নিচে ১০টি এবং দ্বিতীয় তলায় ১০টি রুম তৈরি করে ভাড়া দেয়া হয়। সন্ধ্যায় দ্বিতীয় তলা হতে হঠাৎ করে আগুন লেগে খুব অল্পসময়ের মধ্যে পুরো বাড়িতে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। আগুনের সংবাদ পেয়ে ফতুল্লার বিসিক ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট এক ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আরেফিন জানান, কীভাবে আগুন লেগেছে তা এখনও জানা যায়নি। আগুন লাগার বাড়ির সবাই বের হতে পারলেও একটি কক্ষ তালাবদ্ধ থাকায় ওই নারী বের হতে পারেননি। ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ওই নারীর পুড়ে ছাই হওয়া মরদেহ উদ্ধার করে।

Print Friendly, PDF & Email