বাংলাদেশ , সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০

চ্যাম্পিয়ন- গোল্ড শিল্ড লাভ করেন পশ্চিম নোনাছড়ি, নৌকা বাইচের শেষ দিনের ফাইনাল খেলায়

লেখক : সম্পাদক | প্রকাশ: ২০২০-১০-১৯ ১২:০০:৫০

সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল রামুর বাঁকখালী নদীর দুই তীরে জোরে মারো, হেইয়্যা, প্রতিধ্বনিতে মুখরিত… মুহাম্মদ আবু বকর ছিদ্দিক,রামু কক্সবাজারের রামুতে গ্রামীণ লোকজ ঐতিহ্যবাহি কেন্দ্রীয় নৌকা বাইচ এর ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এই প্রতিযোগিতার ঘোষক, জাজেস- রেডির- গো বলার সাথে সাথে নৌকা খেলা দেখতে আসা বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষেরাই রামুর বাঁকখালী নদীর দুই তীর জোরে মারো,আরও মারো,হেইয়্যা, প্রতিধ্বনিতে মুখরিত হাজার হাজার জনসাধারণ।

সর্বশেষ ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অথিতি ছিলেন কক্সবাজার -রামু আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল। বৃহস্পতিবার দুপুরে রামু ফতেখাঁরকুল

ইউনিয়ন পরিষদের সৌজন্যে বাঁকখালী নদীতে নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা শুরু হয়। খেলা চলাকালে সমর্থকদের মারো,মারো,আরও জোরে মারো শব্দে তীব্র প্রতিদ্বন্ধিতায় মেতে উঠে প্রতিযোগতিায় অংশ নেয়া ২৬টি নৌ দল।

(২৪ অক্টোবর) তিন দিনের নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা শেষ হয়েছে। বাঁকখালী নদীর দু’পারে হাজার হাজার দর্শকের সরব উপস্থিতি দেখা যায়। ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও রামু কেন্দ্রীয় নৌকা বাইচ পরিচালনা কমিটির সভাপতি ফরিদুল আলমের সভাপতিত্বে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে

প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমলের বক্তব্যে বলেন,ঐতিহ্যবাহি নৌকা বাইচ রামুবাসী সহ গণ মানুষের প্রাণের বাইশালী খেলা,নৌকা বাইচ সব পেশার মানুষের প্রাণের খেলা,এই খেলাকে ঘিরে প্রতিবছর অন্যরকম আনন্দে মেতে উঠে হাজার হাজার মানুষ।

সাহিত্য, সংস্কৃতি, লোকজ ঐতিহ্যে ভরপুর পর্যটন শহর রামু উপজেলার গ্রামীণ লোকজ ঐতিহ্য নৌকা বাইচ। শত বছর আগে রামুর বাঁকখালী নদীতে রাখাইনরা নৌকা বাইচ খেলা শুরু করেন।

কালক্রমে এই খেলা আমাদের ক্রীড়া-সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যে পরিণত হয়েছে। তাই অন্যান্য ক্রীড়ার মত নৌকা বাইচ ধারাবাহিকভাবে আয়োজনে তিনি সার্বিক সহযোগিতা করে যাবেন।

বিশেষ অতিথি উপস্থিত ছিলেন রামু থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল খায়ের, রামু থানার ওসি (তদন্ত) এস.এম. মিজানুর রহমান। অনুষ্ঠানে শুরুতে অথিতিদেরকে ফুলের তুরাগ দিয়ে

শুভেচ্ছা জানান নৌকা বাইচের পরিচালনা কমিটি। ফাইনাল খেলায় হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে চ্যাম্পিয়ন- গোল্ড শিল্ড চিরতরে লাভ করেন পশ্চিম নোনাছড়ি, জোয়ারিয়ানালা, ২য় -ট্রপি লাভ করেন নতুন বাহিনী তালেব মেম্বার, নোনাছড়ি,জোয়ারিয়ানালা ৩য়-ট্রপি লাভ করেছেন। ইয়াং টাইগার স্পোটিং ক্লাব, শ্রীমুরা

তাছাড়া ৪র্থ-মাঝি মাল্লা-৮জন।সুশৃঙ্খল দল-মাঝি মাল্লা-৮জন।শ্রেষ্ঠ মাঝি-১জন।শ্রেষ্ঠ বেত ধারক-১জন সহ পুরস্কার গ্রহণ করেন। ৩ দিনব্যাপী নৌকা খেলার প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন অঞ্চলের ২৬ নৌকা বাইচ দল অংশ গ্রহণ করেন এবং ফাইনাল খেলায় ৫৬ পাড়ি খেলা অনুষ্ঠিত হয়। গর্জনিয়া ইউনিয়নের

চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম, ঈদগড় ইউপি চেয়ারম্যান ফিরোজ আহমদ ভূট্টো, জোয়ারিয়ানালা ইউপি চেয়ারম্যান কামাল শামসুদ্দিন আহমেদ প্রিন্স, চাকমারকুল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম, রাজারকুলের ইউপি চেয়ারম্যান মফিজুর রহমান, চেয়ারম্যান মোস্তফা আহমদ, জেলা পরিষদে স

দস্য ব্যবসায়ি নুরুল হক, গিয়াস উদ্দিন কোম্পানী, ব্যবসায়ি মিরকাসেম হেলালী, রামু উপজেলা,রামু উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নীতিশ বড়ুয়া, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ

সাধারণ সম্পাদক তপন মল্লিক, জেলা যুবলীগ নেতা পলক বড়ুয়া আপ্পু,জেলা তাঁতীলীগের সহ-সভাপতি আনছারুল হক ভূট্টো। ফতেখাঁরকুল ইউনিয়নের স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি আজিজুল হক আজিজ। সাংসদ কমলের সহকারি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান,

অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন ক্রীড়াপ্রিয় ওমর ফারুক মাসুম। উপস্থিত সহ স্থানীয় দলীয় নেতৃৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। নৌকা খেলায় জাজেস- রেডির- গো ঘোষকের দায়িত্ব পালন করেন, ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন পরিষদে’র কেন্দ্রীয় নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা পরিচালনা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক, ইউপি সদস্য আবুল বশর,ও

তানভীর। খেলায় সার্বিক দায়িত্বে ছিলেন, বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক ছিদ্দিক আহমদ,নৌকা বাইচ পরিচালনা কমিটি’র সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদ উল্লাহ,(আসাদ ),ইউপি সদস্য নুর আহমদ,ইউপি সদস্য রোকন উদ্দিন,ইউপি সদস্য মোঃ কামাল উদ্দিন,

ইউপি সদস্য সন্তোষ বড়ুয়া, ইউপি সদস্য জাফর আলম, ইউপি মোবারক হোসেন,ইউপি সদস্য লিটন বড়ুয়া, ক্রীড়া সম্পাদক হাজ্বী মহি উদ্দিন, আমান উল্লাহ সওদাগর, সাবেক ইউপি সদস্য

সাইফুল ইসলাম ,ইউপি সদস্য মোর্শেদ আলম,গোপাল নাথ,আলহাজ্ব ফজল আম্বিয়া কেজি স্কুলের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহিম প্রমূখ। অংশ গ্রহণকারী নৌকা বাইচ দল গুলো হল, আশরাফুজ্জামান মাঝি, ১০নং চিরিঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ, চকরিয়া,

কক্সবাজার। আবুল কালাম মেম্বার ও সৈয়দুল হক, জিনেরা ঘোনা, দঃ মিঠাছড়ি কালা পাহাড়, রামু। ভাই ভাই কমিটি, উত্তর ফতেখাঁরকুল, রামু। যৌথ বাহিনী, আশকরখিল, জোয়ারিয়ানালা, রামু।

দারুচ্ছালাম, পূর্ব রাজারকুল, রামু। নৌকা বাইচ টীম, নয়াপাড়া, রাজারকুল, রামু। পি.এম. খালী ক্রিড়া সংঘ, মহসনিয়া পাড়া, কক্সবাজার। পূর্ব দ্বীপ ফতেখাঁরকুল একতা সংঘ, রামু। মোঃ শাহ কোম্পানী, নতুন চরপাড়া, দঃ চাকমারকুল-১, রামু। নতুন বাহিনী তালেব মেম্বার, নোনাছড়ি, জোয়ারিয়ানালা, রামু। শাহমদের পাড়া একাদশ, উত্তর চাকমারকুল, রামু। ইয়াং টাইগার

স্পোটিং ক্লাব, শ্রীমুরা, উত্তর চাকমারকুল, রামু এবং কামাল শামশুদ্দিন প্রিন্স, চেয়ারম্যান, জোয়ারিয়ানালা ইউপি, রামু ১০নং চিরিঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ, চকরিয়া, কক্সবাজার, উত্তর চাকমারকুল যুব উন্নয়ন সংস্থা, চাকমারকুল, রামু, গর্জনিয়া বাকঁখালী একাদশ,পূর্ব বোমাংখিল, গর্জনিয়া, রামু, খোন্দকার পাড়া একতা যুব

সমাজ, ফতেখাঁরকুল, রামু। চাকমারকুল, কলঘর বাজার, রামু। নওজোয়ান সমিতি পূর্ব রাজারকুল, রামু। ইদ্রিস মাঝি খেলোয়াড় একাদশ, দেয়াংপাড়া, রাজারকুল, রামু। মোহাম্মদ, অফিসের চর, ফতেখাঁরকুল, রামু। পূর্ব খরুলিয়া স্মৃতি ফলক, ঝিলংজা, কক্সবাজার। লম্বরী পাড়া কমিটি, ফতেখাঁরকুল, রামু।

সোনার বাংলা খেলোয়াড় একাদশ, পূর্ব মনিরঝিল, কাউয়ারখোপ, রামু। ভাই ভাই সমিতি, পশ্চিম নোনাছড়ি, জোয়ারিয়ানালা, রামু,মোঃ শাহ কোম্পানী, নতুন চরপাড়া

Print Friendly, PDF & Email